শনিবার,  ২১ এপ্রিল ২০১৮  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৬, ২০:০৭:৫০

এ মাসেই যেসব আলোচিত মামলার শুনানি

অনলাইন ডেস্ক
৯ জুলাই ঈদের ছুটি শেষের পর দুই দিন রয়েছে সুপ্রিমকোর্টের অবকাশকালীন ছুটি। এরপর ১২ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে উচ্চ আদালতের নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম। উচ্চ আদালতের বিচারিক কার্যক্রম শুরু হলে কয়েকটি আলোচিত মামলার শুনানি হবে। যার মধ্যে রয়েছে মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদনের শুনানি।
 
মীর কাসেমের রিভিউ: মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদ সদস্য মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদন শুনানির জন্য ২৫ জুলাই দিন ধার্য রয়েছে। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে ওইদিন বিষয়টির উপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। গত ২১ জুন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী শুনানির এই দিন ধার্য করেন। গত ১৯ জুন ফাঁসির দণ্ড থেকে খালাস চেয়ে রিভিউ আবেদন করেন মীর কাসেম আলী।
 
আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলা : আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার ১১ আসামিকে খালাস করে দেওয়া হাইকোর্টের রায় ১৪ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতির আদালত। ১৪ জুলাই প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে বিষয়টি শুনানির জন্য দিন ধার্য রয়েছে। ১১ আসামিকে খালাস করে দেওয়া হাইকোর্টের রায় স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের উপর শুনানি শেষে গত ২১ জুন সুপ্রিমকোর্টের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী স্থগিত আদেশ দেন। গত ১৫ জুন আওয়ামী লীগ নেতা আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলায় ৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ৮ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ১১ জনকে খালাস দেন বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের কোর্ট বেঞ্চ।
 
২০০৪ সালের ৭ মে গাজীপুরের টঙ্গীর নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চবিদ্যালয় মাঠে এক জনসভায় আহসান উল্লাহ মাস্টারকে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়। তার সঙ্গে খুন হন ওমর ফারুক রতন নামে আরো একজন। ওই ঘটনায় করা মামলায় ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন বিএনপি নেতা নূরুল ইসলাম সরকারসহ ২২ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। পরে ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের করা আপিলের উপর শুনানি শেষে হাইকোর্ট ৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড ৮ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ১১ আসামিকে খালাস দেন।
 
শফিক রেহমানের লিভ টু আপিল : সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যাচেষ্টা পরিকল্পনার অভিযোগের মামলায় হাইকোর্টে করা জামিন আবেদন খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করেছেন সাংবাদিক শফিক রেহমান। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে এই লিভ টু আপিল শুনানির জন্য ১৪ জুলাই দিন ধার্য রয়েছে। গত ২৯ জুন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী শফিক রেহমানের লিভ টু আপিল শুনানির জন্য ১৪ জুলাই দিন ধার্য করে দেন।
 
গত ১৬ এপ্রিল রাজধানীর ইস্কাটনের বাসা থেকে শফিক রেহমানকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে যুক্তরাষ্ট্রে অপহরণ করে হত্যাচেষ্টা পরিকল্পনার অভিযোগে দায়ের মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পরে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত এই মামলায় শফিক রেহমানের জামিন নামঞ্জুর করেন। নিম্ন আদালতের এই আদেশের বিরুদ্ধে ২৫ মে হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন তিনি। সেই আবেদনের ওপর শুনানি শেষে গত ৭ জুন শফিক রেহমানের জামিন আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।
 
প্রতিদিন ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ : আদালত নির্দেশ দেওয়ার পরও ট্যানারি না সরানোয় ১৫৪ ট্যানারিকে সরকারি কোষাগারে প্রতিদিন ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ জমা দেওয়ার হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতির আদালত। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে এ বিষয়টি ১৭ জুলাই শুনানির জন্য দিন ধার্য রয়েছে। গত ২৮ জুন সুপ্রিমকোর্টের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ বিষয়ে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশ ১৭ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত করেন। গত ১৬ জুন বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ ১৫৪ ট্যানারিকে প্রতিদিন ৫০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়ার আদেশ দেন। যতদিন পর্যন্ত ট্যানারিগুলো সরানো হবে না ততদিন পর্যন্ত পরিবেশের ক্ষতি বাবদ সরকারি কোষাগারে ওই টাকা দেওয়ার আদেশ দেওয়া হয়। পরে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ফিনিশড লেদার, লেদার গুডস অ্যান্ড ফুটওয়ার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আবেদন করেন।
 
এ সংক্রান্ত সকল খবর
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com

close