বৃহস্পতিবার,  ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৬, ১১:১৭:৪৪

এমপিও শিক্ষকরা ইনক্রিমেন্টের দিকে তাকিয়ে

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী
এখন জুলাই মাস। সরকারি চাকুরীজীবীরা এ মাস থেকে নতুন জাতীয় বেতন স্কেলে যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা ভোগ করবেন। বাড়ি ভাড়া সহ সকল ভাতা এখন থেকে তারা সে হারে উত্তোলন করবেন। গত জুলাই থেকে তারা নতুন স্কেলে শুধু মূল বেতনটা পেয়ে আসছিলেন। এ জুলাই মাসে তাদের নতুন স্কেলের ষোল কলাই পূর্ণ হবে।
 
কিন্তু, অনেক দেন দরবার করে নতুন অষ্টম জাতীয় বেতন স্কেল পেলেও দেশের প্রায় পাঁচ লক্ষ এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারী বাংলা নববর্ষ ভাতার মুখ এখনো দেখতে পাননি। সরকারি চাকুরীজীবীরা গেল ঈদে নতুন স্কেলে পূর্বাহ্ণেই ঈদ বোনাস পেলেও তাঁদের ক্ষেত্রে অপরাহ্ণ পর্যন্ত গড়িয়েছে।
 
বার্ষিক বেতন প্রবৃদ্ধি বা ইনক্রিমেন্ট যে কোনো চাকুরীজীবীর কর্ম ও অভিজ্ঞতার স্বীকৃতি স্বরূপ একটি ন্যায্য অধিকার। এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা প্রকৃত স্বাদ কোনদিন না পেলেও তাঁদের একটি খোঁড়া ইনক্রিমেন্ট ছিল। অষ্টম জাতীয় বেতন স্কেলের সুবাদে সে কলঙ্ক তিলকটি মুছে গেছে। এর ফলে জাতীয় স্কেলভুক্ত অন্যান্যদের ন্যায় এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের ৫% বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট চলতি জুলাই মাসের বেতনের সাথে পাওয়ার পথ উন্মুক্ত হয়েছে। এটি এখন পাওয়া কেবলি সময়ের ব্যাপার মাত্র। কিন্তু, তাঁদের আশংকা আবার যেন কোন খেলা শুরু হয় কে জানে ? এমপিও শিক্ষকদের নিয়ে ভানুমতির খেলা খেলতে অনেকের খুব বেশি পছন্দ।
 
এবার যেন তাঁদের বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট নিয়ে কেউ তামাশা করার সুযোগ না পায়, সে দিকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি সকলেই আগাম কামনা করেন। নতুন স্কেলভুক্তি, বৈশাখি ভাতা, ঈদ বোনাস ইত্যাদি ইস্যুতে তাঁদের মনে জমানো কষ্টগুলো দূর করার জন্য জুলাই মাসের বেতনের সাথে ৫% ইনক্রিমেন্ট যথাসময়ে কার্যকর করাই সমীচীন হবে। দু-এক মাস পেছাবার চিন্তা কারো মাথায় থেকে থাকলে, অনুগ্রহ করে এখনই তা পরিহার করুণ।
লেখক: অধ্যক্ষ, চরিপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, কানাইঘাট, সিলেট।
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com

close